Header Ads

কবিতাঃ ফেরিওয়ালা

-ফেরিওয়ালা-------------
            
             ------দ্বারক ঘোষ 

             ট্রেন বিক্রির পয়সা পেলাম 
তাই পকেটে পুরে, 
ঘুরে এলাম লাদাখটা ভাই 
দিল্লি থেকে দূরে ।

জানিস আমার দুঃখ কত
এই পাথুরে বুকে? 
আমার দেখা পাওয়ার পরেই
চীনকে দিলো রুখে !

চিন চিন চিন তাও করেছে 
বুকে ওদের জানি ,
চিনতে আমায় পেরেও ওরা
চলে বাধ্যে মানি! 

লাদাখটাতে রচে এলাম 
নতুন নাটকখানি,   
যা দেখে সব ভক্তকানা 
টানবে আমার ঘানি ।

জোয়ানরা সব সারি সারি 
হাসপাতালের (!) বেড-এ,
নতুন নাটক প্রদর্শিত 
আমার ফন্দি মেড-এ।

ধ্যানমগ্ন রোগীরা(!)সব
শয্যাপরে ব'সে,
ধ্যানের গুলি আমার বুলি
খেলো সবাই খোশ-এ ।

হাসপাতালের(!) রোগীর ঘরে 
মাইক দিলাম ফুঁকে, 
আইন আমার জমিদারি----
বলছিরে বুক ঠুকে ।

নাট্যমঞ্চে কুশীলবে
তাকিয়ে আশেপাশে, 
নির্দেশকের কান্ড দেখে 
দাঁত দেখিয়ে হাসে ।

স্যালাইনষ্ট্যান্ড,অন্য কিছু 
রোগশয্যার পাশে----
নাই বা যদি থাকে তাতে 
কিসেই বা যায় আসে ?

চীনকে সবক শিখিয়ে এলাম 
কুড়িটি প্রাণ গুণে, 
পাঁচ বছরের পাক্কা গদির 
স্বপ্ন এলাম বুনে ।

কমতি আমি নই তো কিছু 
যোদ্ধা বলিয়ান, 
সর্বস্বান্ত ক'রে দেশের----
বলি দেশ মহান !

সার্জিক্যাল ষ্ট্রাইক হেনে
দেশের ঘরে ঘরে ,
কাজ কেড়েছি লাশ ফেলেছি--
রাস্তা-রেলের 'পরে ।

নিজের সীমায় পিছু হটে
শিক্ষা দিলাম বটে! 
নিন্দুকদের 'চীনা' কথায় 
নানান কিছু রটে ।

বলছে যত নিন্দুকেরা----
এ-কথা নয় সত্যি, 
তবে,আমি ফেরিওয়ালা----
                                 মিথ্যা নয় এক রত্তি ।                                          

No comments

Powered by Blogger.